দেশের বাজারে রিয়েলমি ৯ আই স্মার্টফোন

টেক থিয়েটার টেক নিউজ

Share This News !

ঢাকা: দেশের বাজারে স্ন্যাপড্রাগন ৬৮০ প্রসেসর নিয়ে এলো রিয়েলমি ৯ আই স্মার্টফোন। এই স্মার্টফোনে থাকছে বাংলাদেশের প্রথম স্ন্যাপড্রাগন ৬৮০, ৬ ন্যানোমিটার প্রসেসর।

ভ্যালেন্টাইনস ডে-তে এক ভার্চ্যুয়াল উন্মোচন অনুষ্ঠানে ব্র্যান্ডটির অত্যাধুনিক স্মার্টফোন রিয়েলমি ৯ আই উন্মোচন করেছে।
 
ক্যানালিসের প্রতিবেদন অনুসারে, ২০২১ সালের ৪র্থ প্রান্তিকে বাংলাদেশের নাম্বার ১ স্মার্টফোন ব্র্যান্ড রিয়েলমি বাজারে নিয়ে এসেছে নাইন সিরিজের প্রথম স্মার্টফোন রিয়েলমি ৯ আই। রিয়েলমি ৯ আই স্মার্টফোনের দু’টি সংস্করণ রয়েছে। একটি ডিভাইসে রয়েছে ৬ জিবি র‌্যাম (যা ১১ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে) ও ১২৮ জিবি রম। এর বাজার মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১৯,৪৯০ টাকা। ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি রমের অন্য ডিভাইসটি ১৭,৪৯০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। প্রিজম ব্লু ও প্রিজম ব্ল্যাক – এ দু’টি দুর্দান্ত রঙে পাওয়া যাচ্ছে রিয়েলমি ৯ আই।
 
রিয়েলমি ৯ আই হলো প্রথম ফোরজি স্মার্টফোন, যেখানে বাংলাদেশের প্রথম সর্বাধুনিক স্ন্যাপড্রাগন ৬৮০, ৬ ন্যানোমিটার প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। বর্তমানে এ দামের মধ্যে অত্যাধুনিক প্রসেসরের কোনো ফোন বাজারে পাওয়া যাচ্ছে না। দ্রুতগতি সম্পন্ন প্রসেসরের কারণে, ব্যবহারকারীরা এই ফোনের মাধ্যমে নিরবচ্ছিন্নভাবে স্মার্টফোনের পারফরমেন্স উপভোগ করতে পারবেন, কারণ এই নতুন চিপসেটটি ৬২ শতাংশ কম শক্তি খরচ করে এবং ১২ ন্যানোমিটার প্রসেসরের তুলনায় ৪৬ শতাংশ বেশি কর্মক্ষমতা প্রদান করে৷
 
ব্যবহারকারীদের সুবিধার জন্য রিয়েলমি ৯ আই ডিভাইসটি এ সেগমেন্টে প্রথম ৩৩ ওয়াট ডার্ট চার্জিং সল্যুশন নিয়ে এসেছে। এর মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা তাদের ডিভাইসটি আগের জেনারেশনের চার্জিং সল্যুশন থেকে ৩৬ শতাংশ দ্রুততর চার্জ করতে পারবেন এবং ০-১০০ শতাংশ চার্জ হবে মাত্র ৭০ মিনিটে। ৫ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ার বিশাল ব্যাটারি সুবিধা থাকায় এ ফোনটি দিয়ে ৪৮.৪ ঘণ্টা ফোনে কথা বলা যাবে।  
 
৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট এবং ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে সুবিধার রিয়েলমি ৯ আই ডিভাইসটিতে স্মার্টফোন ব্যবহারের নির্বিঘ্ন অভিজ্ঞতা ও শক্তি সাশ্রয়ের জন্য পাঁচ স্তরের রিফ্রেশ রেট ব্যবহার করা হয়েছে। এছাড়াও, ডিভাইসটিতে রয়েছে এই প্রাইজ সেগমেন্টে হাই রেস ডুয়াল স্টেরিও স্পিকার, যা সঙ্গীতপ্রেমীদের গান শোনার অভিজ্ঞতাকে আরও উপভোগ্য করবে। এ সব ফিচার ও অত্যাধুনিক চিপসেট থাকায় এ সেগমেন্টে এটিই সেরা ফোন।  
 
রিয়েলমি ৯ আই ডিভাইসটি দেখতে বেশ চমৎকার। কারণ, ডিভাইসটি স্টেরিও প্রিজম ডিজাইন দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে তৈরি করা হয়েছে, যেখানে রয়েছে আট স্তরের অপটিক্যাল কোটিং। টেক্সচার ছাঁচে তিন হাজারেরও বেশি প্রিজমের মতো লাইন সমন্বয় রয়েছে। আলোতে প্রিজম্যাটিক টেক্সচার ‘লাইট ইন দ্য মুভমেন্ট’ এর ভিজ্যুয়াল অনুভূতি তৈরি করে। ৮.৪ মিমি পুরুত্ব এবং ১৯০ গ্রাম ওজনের এ ফোনটি পাতলা এবং হালকা৷
 
ফটোগ্রাফি প্রেমীদের জন্য এ ডিভাইসটিতে বিভিন্ন ফিচার ব্যবহার করা হয়েছে। অতি-স্বচ্ছ ছবি তোলার জন্য ডিভাইসটিতে ৫০ মেগাপিক্সেল নাইটস্কেপ ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে। ছবি তোলার অন্যান্য ফাংশন যেমন: নাইট মোড, প্যানোরামিক ভিউ, টাইম-ল্যাপস, পোর্ট্রেট মোড এবং এআই বিউটি ব্যবহারকারীর প্রতিটি ক্যাপচারকে করবে দুর্দান্ত। সঙ্গে ১৬ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরাও রয়েছে দারুণ সব সেলফির জন্য। এক কথায় ২০২২ সালের শুরুতে তরুণদের জন্য দারুণ স্মার্টফোন রিয়েলমি ৯ আই নিয়ে এসেছে দেশের তরুণদের পছন্দের ব্র্যান্ড রিয়েলমি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.